১২ আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , শুক্রবার, ২৮ শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৩ মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি।
১২ আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , শুক্রবার, ২৮ শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৩ মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি।

পশ্চিমা হজ্জযাত্রীরা আর ট্রাভেল এজেন্সি নয় সরাসরি বুকিং করতে পারবেন

সরাসরি সৌদি সরকারের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদনের পর ‘ই-লটারিতে’ স্থান নিশ্চয়তা এবং ফ্লাইট ও বাসস্থান বুক করতে হবে

বাংলা ভয়েস প্রতিবেদন:

বার্ষিক হজ যাত্রার কয়েক সপ্তাহ আগে, সৌদি আরব নতুন নিয়ম চালু করেছে যার অর্থ পশ্চিমা দেশগুলির সম্ভাব্য ভ্রমণকারীদের এখন ট্রাভেল এজেন্সিগুলির মাধ্যমে না হয়ে একটি সরকারি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে মক্কায় তাদের সফর বুক করতে হবে। সৌদি আরবের হজ মন্ত্রণালয় ইউরোপ, আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়ার ট্রাভেল এজেন্সিগুলোকে অন্ধকারে রেখে, তাদের জন্য বরাদ্দকৃত স্থানের সংখ্যা না জানানোর কয়েক মাস পর নতুন ব্যবস্থাটি এসেছে।

সৌদীর নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সম্ভাব্য হজযাত্রীদের এখন হজ্জযাত্রার জন্য আবেদন করতে হবে । লটারীর মাধ্যমে অনুমোদিত-স্থান নিশ্চিত হলে, নির্ধারিত প্যাকেজ ফি ঐ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে পরিশোধ করে ফ্লাইট এবং হোটেল বুক করতে হবে।

সৌদি আরবের হজ মন্ত্রণালয় সোমবার নিশ্চিত করেছে যে “ইউরোপ, আমেরিকা এবং অস্ট্রেলিয়া” থেকে হজ্জযাত্রীদের  https://www.motawif.com.sa/home/en-sa  ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে এবং “স্বয়ংক্রিয় লটারি” বা ড্রয়ের মাধ্যমে স্থান নির্ধারণ করা হবে।

হজ্জযাত্রীদের প্যাকেজের বিস্তারিত তথ্য এখনো অনিশ্চিত, তবে বলেছে যে এতে ফ্লাইট এবং বাসস্থানের মূল্য অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

ড্র-এর সময়সীমা নির্ধারিত না হলেও সম্ভাব্য হজ্জযাত্রীরা যারা ইতোমধ্যে এজেন্সিতে ডিপোজিট করেছেন তা ফেরত নিয়ে আসার পরামর্শ দিয়েছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।

হজ্জ বিশ্বের বৃহত্তম ধর্মীয় সমাবেশগুলির মধ্যে একটি। সুস্থ  এবং খরচ বহন করতে সক্ষম প্রত্যেক মুসলমানের জন্য হজ্জ একটি ধর্মীয় বাধ্যবাধকতা।

ওয়েবসাইটে সহজ পাঁচটি ধাপে আবেদন এবং কাংখিত হজ্জযাত্রা নিশ্চয়তার কথা বলা হলেও এ নিয়ে বিভিন্নমহলে উৎকণ্ঠা রয়েছে। বিশেষ করে ওয়েবসইটে লেনদেনের নিশ্চয়তা, এটল-প্রটেকশন ইত্যাদি না থাকার বিষয়ে কিছু কিছু এজেন্সিরা সরাসরি বুকিংয়ের বিষয়ে সতর্ক্ করছেন।

পাশাপাশি হজ এবং ওমরাহ সংক্রান্ত সর্বদলীয় সংসদীয় গ্রুপের এমপিদের মাধ্যমে সৌদী দূতাবাসে নতুন নিয়ম বিষয়ে সম্ভাব্য সীমাবদ্ধতা তুলে ধরা হয়েছে। তবে এ ব্যাপারে নিশ্চিত উত্তর না পাওয়া গেলেও মে মাসে, ব্রিটেনে সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত, খালিদ বিন বান্দর আল-সৌদ, হজ এবং ওমরাহ সংক্রান্ত সর্বদলীয় সংসদীয় গ্রুপের এমপিদের বলেছেন যে সম্ভাব্য হজযাত্রীরা এজেন্সিকে ডিপোজিট দিয়ে থাকলে তা ফেরত আনা এবং এজেন্সিসমূহও যদি সৌদী আরবে সৌদি অংশীদারদের হোটেল বা পরিবহন খাতে কোন ডিপোজিট দিয়ে থাকেন, তা ফেরতের আবেদন করার জন্য পরামর্শ দিয়েছেন।

হজের মওসুম শুরু হওয়ার এত কাছাকাছি এসে হঠাৎ এই পরিবর্তন হজ্জযাত্রীদের চরম অনিশ্চয়তা এবং ভুগান্তির মধ্যে ফেলেছে। এতে করোনভাইরাস মহামারীর পর থেকে চরম আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষমান হজ্জযাত্রীদের হজ সম্পন্ন করার সুযোগ হারানোর সম্ভাবনা প্রকট।

সংবাদটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন সবার মাঝে

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on print
Print
Share on email
Email
Share on whatsapp
WhatsApp

কোন মন্তব্য নেই। আপনি প্রথম মন্তব্যটি করুন। on পশ্চিমা হজ্জযাত্রীরা আর ট্রাভেল এজেন্সি নয় সরাসরি বুকিং করতে পারবেন

আপনি কি ভাবছেন ? আপনার মতামত লিখুুন।

এই বিভগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ