ওয়াটার কিপার লন্ডনের সহযোগিতায় বার্মিংহামে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

কমিউনিটি সংবাদ

waterশিল্পায়ন যে কোন দেশের শক্তিশালী অর্থনীতির অন্যতম মাধ্যম। কিন্তু অবাধ এবং অপরিকল্পিত শিল্পায়নের সুযোগে পরিবেশ বিপর্যয় আজ মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। বিশ্বব্যাপী নদীদূষণ আজ মানুষের জীবনযাত্রায় ব্যাপক ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এব্যাপারে সরকার, শিল্প উদ্যোক্তারা যেমন উদাসীন তেমনি সাধারণ মানুষও নন সতর্ক্। এ লক্ষে জনসচেতনতা গড়ে তুলতে ওয়াটার কিপার নামক একটি সংগঠন বিশ্বব্যাপী কাজ করে যাচ্ছে। গত ২১ নভেম্বর, সোমবার ওয়াটার কিপার লন্ডন এর সহযোগিতায় বার্মিংহামে এক জনসচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অনুষ্ঠানের অন্যতম আয়োজক এম এ মুনতাকিম প্রজেক্টরের মাধ্যম বাংলাদেশের নদ-নদীতে পরিবেশ বিপর্যয় এবং রামপালে প্রস্তাবিত বিদ্যুত প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে সুন্দরবনে সম্ভাব্য ক্ষয়-ক্ষতি নিয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন। ওয়াটার কিপার লন্ডনের প্রতিনিধি থিও থমাস যুক্তরাজ্যের নদ-নদীর পরিবেশ বিপর্যয় নিয়ে তথ্য চিত্র উপস্থাপন করেন। অনুষ্ঠানে মিডল্যান্ডস এর বিভিন্ন এলাকা থেকে কমিউনিটির বিভিন্ন এক্টিভিস্টদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- কমরেড মসুদ আহমদ, রানা মিয়া চৌধুরী, জিএম মৌলা মিয়া, মুকিত মিয়া, কাউন্সিলর নেওয়াজ আলী, সুহেল আহমদ চৌধুরী, কবির আহমদ, এবি চৌধুরী অপু, সঞ্জয়, নজমুল চৌধুরী, শাহ হাবিবুর রহমান,শওকত হক, নাজির হোসেন, জে হোসেন  ফারছু আহমদ চৌধুরী, আশরাফুল ওয়াহিদ দুলাল। উল্লেখ্য বাংলাদেশের নদ-নদী, সুন্দরবন এবং যুক্তরাজ্যের নদনদী নিয়ে ওয়াটার কিপার এলায়েনস লন্ডনের সাথে বাংলাদেশী কমিউনিটির নির্দিষ্ট প্রতিনিধির মধ্যে বার্মিংহাম থেকে সক্রিয়ভাবে কাজ জড়িত রয়েছেন- এম এ মুনতাকিম, মোহাম্মদ মারুফ, কবির আহমদ, মোহাম্মদ বদরুল আলম চৌধুরী, এবি চৌধুরী অপু, সঞ্জয়।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *